সারাদেশ

মায়ের আঁচল এর পক্ষ থেকে ২০০’শ পরিবারের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরণ

১০ মে ২০২১, বিন্দুবাংলা টিভি. কম, না: গঞ্জ প্রতিনিধি : ১০ মে সোমবার ২০২১ বেলা বারোটায় মায়ের আঁচল সাহিত্য সামাজিক সাংস্কৃতি মৈত্রী পরিষদ(মাআসাপ) বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় এর উদ্যোগে দুই শতাধিক গরীব অসহায়দের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরণ করা হয়। অনুষ্ঠানে সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা ও সভাপতি লেখক সাংবাদিক হারুন অর রশিদ সাগর এর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কুতুবপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মনিরুল আলম সেন্টু, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের উপদেষ্টা জাহাঙ্গীর হোসেন স্বাধীন, জয়যাত্রা টেলিভিশন নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি আলী হোসেন ,সংগঠনের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সোহেল আহমেদ, সংগঠনের সাবেক সাধারন সম্পাদক কবি মানিক হোসেন, নারী কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক লুবনা আক্তার সুমি, কার্যকারী সদস্য কবি এস এম বিপ্লব, নাঈম হোসেন, শওকত হোসেন, দুলাল মাহাজন, আপেল মাহমুদ প্রমুখ,

প্রধান অতিথির বক্তব্যে কুতুবপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মনিরুল আলম সেন্টু বলেন বিশাল একটি জনগোষ্ঠীর মাধ্যে সরকার ও কুতুবপুর ইউনিয়ন পরিষদ নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছ।এর পাশাপাশি সুন্দর ভাবে সকলের গৌড় দুয়ারে খাদ্য সামগ্রী বা ঈদ সামগ্রী পৌঁছে দেওয়া জন্য সামাজিক সংগঠনগুলো এগিয়ে আসলে কাজগুলো আরো অনেক সহজ হয় এবং তৃণমূল পর্যায়ে নিম্ন আয়ের মানুষদের কাছে খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে যায়। যে যার অবস্থান থেকে সমাজের নিম্নআয়ের মানুষদের পাশে একটু সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিন তাহলে আমাদের সমাজে কেউ কষ্ট ভোগ করবে না বা অভুক্ত থাকতে হবে না । আজকে মায়ের আঁচল সাহিত্য সামাজিক সাংস্কৃতি মৈত্রী পরিষদ প্রায় দুই শতাধিক গরীব অসহায়দের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরণ করেছেন সেটা অত্যন্ত প্রশংসনীয় ও মহৎ কাজ। এ ধরনের সংগঠনের সাথে যদি আমাদের সমাজের বিত্তবানরা এগিয়ে আসেন তাহলে তাদের কার্যক্রম আরও বেগবান হবে এবং অনেক গরীব অসহায় মানুষের উপকার হবে বর্তমানে খুব মহামারী করোনায় মানুষের জনজীবন বিপন্ন অবস্থায়, মানুষ খাদ্যের অভাবে রাস্তায় বেরিয়ে যাতে না যায় সে জন্য সামাজিক সংগঠনগুলো এগিয়ে প্রত্যেকের বাসায় খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দেয় তাহলে তাদের অনেক উপকার হবে। সভাপতির বক্তব্যে হারুন-অর-রশিদ সাগর বলেন আমরা মায়ের আঁচল কে নিয়ে হাটি হাটি পাপা করে ২০১১ সাল থেকে আপনাদের সকলের সহযোগিতা ও ভালোবাসায় এ পর্যন্ত এগিয়ে এসেছি তাই চেষ্টা করে যাচ্ছি অবিরত মানুষের কল্যাণে কাজ করার জন্য। আমরা প্রতিবছরই দুটি ঈদের গরীব অসহায়দের মাঝে সামগ্রী খাদ্য সামগ্রী, পরিধেয় কাপড়, বিতরণ করে থাকি এবং গত বছর করোনা লকডাউন এ থাকা তিন শতাধিক লোকের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেছিলাম। সেই লক্ষ্যে এবছর আমাদের সাধ্যমত প্রায় দুই শতাধিক মানুষের মাঝে পোলাও চাউল, দুই পদের সেমাই, চিনি, দুধ বিতরণ করছি। যদি সরকারি কোন অনুদান অথবা আমাদের সমাজের বিত্তবানরা এগিয়ে আসেন তাহলে আমরা সামনে আরো অনেক বেশি মানুষের উপকার এর কাজ করতে পারব।অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন হযরত মাওলানা আবুল বাশার হেলালী সাহেব।।

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Back to top button