সারাদেশ

নরসিংদীতে ‘জ্বিনের বাদশাহ’সহ আটক ২

০৯ নভেম্বর ২০২০, বিন্দুবাংলা টিভি. কম, ডেস্ক রিপোর্ট

নরসিংদীতে প্রতারণার মাধ্যমে টাকা আত্মসাতের অভিযোগে কথিত জ্বিনের বাদশাহসহ দুজনকে আটক করেছে গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)।

সোমবার (৯ নভেম্বর) ভোরে মনোহরদী উপজেলার বীরগাঁও থেকে ওই দুজনকে আটক করা হয়। তারা হলেন—নরসিংদীর মনোহরদী উপজেলার বীরগাঁও গ্রামের সোনাম উদ্দিন (৮০) ও সদর উপজেলার পশ্চিম দত্তপাড়া মহল্লার সাদিকুর রহমান ওরফে সিদ্দিক (৪৪)।

নরসিংদী গোয়েন্দা পুলিশের পরিদর্শক ও জেলা পুলিশের মিডিয়া সমন্বয়ক রুপণ কুমার সরকার সোমবার সন্ধ্যায় সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানান, গত ৩ অক্টোবর নরসিংদী শহরের সিঅ‌্যান্ডবি রোডের একটি দোকানে বসে চা পান করছিলেন ফারুক আহমেদ নামের এক ব্যক্তি। এ সময় পাশে বসে থাকা সিদ্দিক বলেন, ‘১৪ বছর মামলা লড়ে জায়গার কোনো হদিস পেলাম না। সে মামলার কাগজ পেলাম সোনাম উদ্দিন হুজুরের কাছে গিয়ে।’ ফারুক আহমেদেরও জমি নিয়ে বিরোধ ছিল। তিনি সিদ্দিকের কথায় বিশ্বাস করেন এবং জমি সংক্রান্ত বিরোধ নিয়ে তার সঙ্গে কথা বলেন। সিদ্দিক মোবাইল ফোনে সোনাম উদ্দিন হুজুরের সঙ্গে ফারুকের কথা বলিয়ে দেন। ফারুক আহমেদকে সরাসরি দেখা করতে বলেন সোনাম উদ্দিন।

৪ অক্টোবর সিদ্দিকের সঙ্গে মনোহরদীর বীরগাঁও এলাকায় কথিত জ্বিনের বাদশা সোনাম উদ্দিনের কাছে যান ফারুক আহমেদ। সোনাম উদ্দিন আলখাল্লা পরিধান করে জ্বিন সেজে নকল কণ্ঠে কথা বলেন। এতে ফারুকের মনে বিশ্বাস জন্মায়। জমি ও ভালো চাকরি পাইয়ে দেওয়ার কথা বলে ফারুকের কাছ থেকে কয়েক ধাপে ৩ লাখ ৪০ হাজার ৪৯০ টাকা হাতিয়ে নেয় ওই চক্র। কিছুদিন অতিবাহিত হওয়ার পরও কথামতো কাজ না হওয়ায় ফারুক আহমেদের মনে সন্দেহ হয়।

৮ নভেম্বর এ বিষয়ে নরসিংদীর পুলিশ সুপার কার্যালয়ে মৌখিক অভিযোগ জানান ভুক্তভোগী ফারুক আহমেদ। পরে ডিবির এসআই তাপস কান্তি রায় তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় প্রতারকদের অবস্থান শনাক্ত করেন এবং অভিযান চালিয়ে মনোহরদী উপজেলার বীরগাঁও থেকে সোনাম উদ্দিন ও সিদ্দিককে গ্রেপ্তার করেন। এ সময় তাদের কাছ থেকে নগদ ৬০ হাজার টাকা, আংটি, পাথর, আলখাল্লা জব্দ করা হয়।

নরসিংদীতে সংঘবদ্ধ প্রতারকচক্র জ্বিনের বাদশা সেজে প্রতারণা করে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Back to top button