সারাদেশ

চট্টগ্রাম বন্দরে ১২ কোটি টাকা মূল্যের সিগারেটের বড় চালান আটক

১৩ নভেম্বর ২০২০, বিন্দুবাংলা টিভি. কম, ডেস্ক রিপোর্টঃ

শুল্কমুক্ত কোটায় গার্মেন্টস কারখানার উপকরণ ঘোষণা দিয়ে অবৈধভাবে আমদানিকৃত প্রায় ১২ কোটি টাকার সিগারেট আটক হয়েছে চট্টগ্রাম বন্দরে।

বৃহস্পতিবার (১২ নভেম্বর) চীন থেকে আমদানিকৃত কন্টেইনার ভর্তি পণ্য গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কায়িক পরীক্ষার মাধ্যমে এই বিপুল পরিমাণ সিগারেটের চালান আটক করতে সক্ষম হয় বন্দরের শুল্ক গোয়েন্দারা। এই চালানে প্রায় ৬ কোটি টাকা শুল্ক কর ফাঁকি দেয়ার চেষ্টা হয়েছে বলে কাস্টমস গোয়েন্দা কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।

চট্টগ্রাম বন্দরের কাস্টমস গোয়েন্দা শাখার সহকারী কমিশনার রেজাউল করিম সিগারেটের চালান আটকের সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, গার্মেন্টস শিল্পের পণ্য ঘোষণা দিয়ে ঢাকার সাভারের হোপ ইক (বাংলাদেশ) নামের একটি প্রতিষ্ঠান সাড়ে ১৮ মেট্রিক টন পণ্য আমদানি করেন। এসব পণ্য চট্টগ্রাম বন্দর থেকে খালাস করতে চট্টগ্রামের আগ্রাবাদের চান্দু করপোরেশন নামের একটি সিএন্ডএফ এজেন্ট বিল অব এন্ট্রি দাখিল করে। কিন্তু কাস্টমস গোয়েন্দারা গোপন সূত্রে জানতে পারে পোষাক শিল্পের পণ্য ঘোষণা দিলেও এই কন্টেইনারে ভিন্ন পণ্য রয়েছে। যা শুল্ক ফাঁকি দিয়ে বন্দর থেকে খালাসের চেষ্টা চলছে।

এই সংবাদের ভিত্তিতে কাস্টমস গোয়েন্দারা বৃহস্পতিবার এই কন্টেইনার খুলে কায়িক পরীক্ষা চালায় । এই সময় উক্ত কন্টেইনারে গার্মেন্টস পণ্যের বদলে ৮৫০ কার্টুন বিভিন্ন ব্র্যান্ডের বিদেশি সিগারেট পাওয়া যায়। এসব সিগারেটের মুল্য প্রায় ১১ কোটি ৯০ লাখ টাকা। এই চালানে আমদানিকারক প্রতিষ্ঠান প্রায় ৬ কোটি টাকা শুল্ক ফাঁকি দেয়ার অপচেষ্টা চালিয়েছে।

এ ঘটনায় কাস্টমস আইন অনুযায়ী মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। আমদানির সাথে জড়িতদের চিহ্নিত করে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে কাস্টমস কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে।

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Back to top button