সারাদেশ

গোলাগুলিতে ‘ইয়াবা কারবারি’ নিহত

১৩ নভেম্বর ২০২০, বিন্দুবাংলা টিভি. কম, ডেস্ক রিপোর্টঃ

কক্সবাজারের টেকনাফের নাফ নদীতে বিজিবির সঙ্গে গোলাগুলিতে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছে। এসময় আহত হয়েছে বিজিবির দুই সদস্যও।

ঘটনাস্থল থেকে ২ লাখ ১০ হাজার পিস ইয়াবা, একটি দেশে তৈরি অস্ত্র ও দুই রাউন্ড কার্তুজের খালি খোসা উদ্ধার করা হয়েছে।

শুক্রবার (১৩ নভেম্বর) দিবাগত মধ্যরাতে এ গোলাগুলির ঘটনা ঘটে।

টেকনাফের ২ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল ফয়সল হাসান খান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

বিজিবির দাবি, নিহত ব্যক্তি ইয়াবা কারবারি। তবে তার পরিচয় শনাক্ত করা যায়নি।

লে. কর্নেল ফয়সল হাসান খান জানান, বিজিবির কাছে খবর ছিল মধ্যরাতে নাফ নদীর ১ নম্বর স্লুইচ গেট এলাকা মিয়ানমার থেকে ইয়াবার একটি বড় চালান আসতে পারে। এর পরিপ্রেক্ষিতে বিজিবির একটি বিশেষ টহল দল সেখানে স্পিডবোট নিয়ে টহলরত অবস্থায় ৩ জন সন্দেহজনক ব্যক্তিকে হস্তচালিত কাঠের নৌকা নিয়ে বাংলাদেশের জলসীমার দিকে আসতে দেখে। বিজিবির টহলদল তাদের চ্যালেঞ্জ করা মাত্রই তারা বিজিবি সদস্যদের লক্ষ‌্য করে গুলি বর্ষণ করতে থাকে। এতে বিজিবির দুই সদস্য আহত হন। এসময় বিজিবি সদস্যরাও পাল্টা গুলি চালালে দুইজন ইয়াবা কারবারি নদীতে ঝাঁপ দিয়ে সাঁতরে শূন‌্য রেখা অতিক্রম করে মিয়ানমারের ভিতরে চলে যায়। পরে বিজিবি সদস্যরা কাঠের নৌকা থেকে অজ্ঞাতনামা এক ইয়াবা কারবারিকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করে।

পরে তাকে টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। নৌকা তল্লাশি করে ২ লাখ ১০ হাজার ইয়াবা এবং গুলিবিদ্ধ ব্যক্তির কাছে একটি দেশে তৈরি অস্ত্র দুই রাউন্ড কার্তুজের খোসা জব্দ করা হয়েছে। জব্দ করা ইয়াবার মূল্য প্রায় ৬ কোটি ৩০ লাখ টাকা।

বিজিবি কর্মকর্তা লে. কর্ণেল ফয়সল হাসান খান আরও জানান, এ ঘটনায় আহত বিজিবি সদস্যদের টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Back to top button