সারাদেশ

হোমনায় হট লাইনে ফোন দিলেই ঘরে পৌঁছে যাচ্ছে সংসদ সদস্যের বরাদ্দকৃত খাদ্য সামগ্রী।

১৫ এপ্রিল ২০২০, বিন্দুবাংলা টিভি. কম,
সৈয়দ আনোয়ার, হোমনা :
কুমিল্লার হোমনায় মহামারী করোনা ভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে ঘরবন্দী শ্রমজীবী কর্মহীন, হতদরিদ্র অসহায় মানুষগুলো সহ। খাদ্য সংকট আছে এমন ব্যক্তিরা হটলাইনে ফোন দিলেই তাৎক্ষণিকভাবে খাদ্য সামগ্রী ঘরে পৌঁছে দিচ্ছেন ।হোমনা-তিতাস আসনের নির্বাচিত সংসদ সদস্য সেলিমা আহমাদ এর ত্রাণ সহায়তা পৌঁছে দেয়ার জন্য গঠিত “হটলাইন টিম” ও উপজেলা ছাত্রলীগ এর সদস্যরা।

হোমনা-তিতাসের কোন একজন জনগনও যেন খাদ্যসংকটে অনাহারে না থাকেন সেই লক্ষ্যকে মাথায় নিয়ে,সংসদ সদস্যের নিজস্ব অর্থায়নে “হট লাইন টিম” নামে এই কার্যক্রম চলছে। ইতিমধ্যে হোমনায় ও তিতাস উপজেলার ১৯ টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভার জনগণের মধ্যে প্রায় ২০ হাজার ব্যাগ খাদ্য সামগ্রী বাড়ি বাড়ি পৌঁছানো হয়েছে এবং খাদ্য সামগ্রী বিতরণ কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে।

যতদিন পর্যন্ত দেশের করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হবে ততদিন পর্যন্ত ঘরে ঘরে খাবার পৌঁছে দেওয়ার কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে বলে জানা যায় ।এছাড়াও আওয়ামী লীগের স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, দলীয় নেতা কর্মীদের মাধ্যমে ঘরবন্দি গরীব ও অসহায় মানুষের মাঝে বিভিন্ন তালিকা অনুযায়ী খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে।

করোনা ভাইরাসের প্রভাবে খাদ্য সংকটের এই দুর্দিনে স্থানীয় সংসদ সদস্য এমন জনবান্ধব উদ্যোগে আনন্দিত দুটি উপজেলার সর্বস্তরের জনগণ। এতে করে কর্মহীন অসহায়, হতদরিদ্র মানুষগুলোর ক্ষুধা নিবারণের পাশাপাশি স্বাভাবিক জীবনযাত্রা অব্যাহত থাকবে বলে মনে করছেন সমাজকর্মী ও সুশীল সমাজের নেতৃবৃন্দ।

কুমিল্লা-২(হোমনা-তিতাস) আসনের এমপি সেলিমা আহমাদ জানান, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে করোনা সংকট মোকাবেলায় হোমনা-তিতাসবাসীর জন্য দিন-রাত পরিশ্রম করে যাচ্ছি।এ সংকটময় মুহূর্তে অসহায় মানুষ যাতে খাদ্য সংকটে না পড়ে এ জন্য আমরা বাড়িতে বাড়িতে খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দিচ্ছি। তিনি আরও বলেন,নির্বাচনের সময় যেভাবে আমি বাড়ি বাড়ি গিয়ে ভোট চেয়েছি ঠিক সেই ভাবেই আমার খাদ্য সামগ্রী অসহায়দের বাড়ি বাড়ি পৌঁছে দিচ্ছি হটলাইন টিম ও ইউনিয়ন ছাত্রলীগ পরিবারের মাধ্যমে।এছাড়াও তিনি বলেন, করোনা ভাইরাস থেকে নিজেকে ও নিজের পরিবার তথা দেশকে রক্ষা করতে সবাই সচেতনত হোন,ঘরে থাকুন, ভালো থাকুন ।

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Back to top button