জাতীয়

লকডাউনে নাস্তা খেতে বের হয়ে দিলেন জরিমানা

০৮ জুলাই ২০২১, বিন্দুবাংলা টিভি. কম, ডেস্ক রিপোর্টঃ

করোনার সংক্রমণের হার ঊর্ধ্বগতি থাকায় আগামী ১৪ জুলাই পর্যন্ত সর্বাত্মক লকডাউন ঘোষণা করেছে সরকার। এ সময় অকারণে বাড়ি থেকে বের হওয়ার ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করে সরকার। লকডাউনের ৮ম দিনে নাস্তা খেতে বের হওয়ায় এক বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রকে গুনতে হলো জরিমানা।

বৃহস্পতিবার (৮ জুলাই) সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত রাজধানীর মিরপুর ১৪, ১২, ১১, ১০, ২ নম্বর এলাকার পাড়া-মহল্লা ও বাসস্ট্যান্ড এলাকা ঘুরে এমন চিত্র দেখা যায়।

লকডাউনের ৮ম দিনে বিগত দিনের তুলনায় মানুষের সঙ্গে ব্যক্তিগত গাড়ি, ট্রাক, কাভার্ড ভ্যান, পিকআপ চলাচলও বাড়তে দেখা গেছে। এদিন সকাল ১১টার দিকে কাফরুল থানার কয়েকটি গাড়ি ১০ নম্বর গোল চক্করে এসে থামে। সে সময় মাস্ক না পরা, অযথা রাস্তায় বের হওয়ার অজুহাতে ১৬ জনকে আটক করে গাড়িতে উঠানো হয়।

আটক ব্যক্তিদের মধ্যে নাস্তা খেতে বের হওয়ার কারণে এক বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রকে ১০০ টাকা জরিমানা করা হয়।

বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র আরিফুল জানান, বাসায় সমস্যা থাকার কারণে মিরপুর ১৩ থেকে তিনি মিরপুর ১০ নম্বরের একটি হোটেলে নাস্তা খেতে ঢুকছিলেন। এ সময় তার মুখে মাস্ক না থাকায় পুলিশের সদস্যরা তাকে গাড়িতে উঠিয়ে নেয়।

মিরপুর ১০ নম্বর গোল চক্করে দুপুর ১২টার দিকে ঢাকা জেলার নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ফারহানা করিম আটক সবার কথা শুনে বিভিন্ন মেয়াদে জরিমানা করেন। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ফারহানা করিম জানান, বিধি-নিষেধ অমান্য করায় মিরপুর ১০ নম্বর থেকে আট জনকে জরিমানা করা হয়েছে।

রাজধানীতে বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে সড়কে বাড়ছে গাড়ির চাপ। ব্যক্তিগত গাড়ি ও রিকশা করে যে যার গন্তব্যে পৌঁছে যাচ্ছেন। গাড়িগুলোকে পুলিশ তল্লাশি করলেও রিকশাগুলো ছিল তল্লাশির বাইরে।

মিরপুর ১০ নম্বর গোলচক্করে দায়িত্বরত পুলিশের উপ কমিশনার মাহবুব জানান, ব্যাংক-বীমা প্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ায় সড়কে গাড়ির চাপ বাড়ছে। গাড়ি সামলাতে ট্রাফিক পুলিশ হিমশিম খাচ্ছে। আগের তুলনায় পুলিশের কাজও বেড়েছে।

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Back to top button