খেলা

ইনিংস হার এড়াতে লড়ছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ

১২ জুন ২০২১, বিন্দুবাংলা টিভি. কম, ডেস্ক রিপোর্টঃ

প্রথম ইনিংসে অ্যানরিখ নরকিয়া ও লুঙ্গি এনগিদির বোলিং তোপে মাত্র ৯৭ রানে অলআউট হওয়ার পর দ্বিতীয় ইনিংসেও ধুঁকছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। দ্বিতীয় দিন শেষে ৮২ রানে তুলতেই ইতোমধ্যে ৪ উইকেট হারিয়েছে স্বাগতিকরা। ফলে ইনিংস হারের হাতছানি দিচ্ছে ক্যারিবীয়দের। ইনিংস হার এড়াতে আরও ১৪৩ রান করতে হবে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে।

ড্যারেন স্যামি স্টেডিয়ামে দক্ষিণ আফ্রিকার চেয়ে ২২৫ রানে পিছিয়ে থেকে দ্বিতীয় ইনিংস শুরু করে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। তবে দ্বিতীয় ইনিংসের শুরুটাও ভালো হয়নি ক্যারিবীয়দের। দলীয় মাত্র ১২ রানেই সাজঘরে ফেরেন ক্রেইগ ব্রাথওয়েট। থিতু হয়ে ইনিংস বড় করতে পারেননি কিরন পাওয়েল ও শাই হোপ। ৩৩ বলে ১৪ রান করে পাওয়েল ফেরার পর ২৮ বলে ১২ রান করে ফিরেছেন হোপ। কাইল মায়ার্সকে নিয়ে জুটি গড়ার চেষ্টা করলেও সেটা বড় করতে পারেননি রোস্টন চেজ। ৯ বলে ১২ রানের ইনিংস খেলে সাজঘরে ফেরেন মায়ার্স। এরপর চেজকে নিয়ে দিন শেষ করেন জার্মেইন ব্ল্যাকউড।

দ্বিতীয় দিনের শেষ বিকেলে ফিরতে পারতেস হোপও। ব্যক্তিগত ৬ রানের সময় জীবন পান ডানহাতি এই ব্যাটসম্যান। এনগিদির বলে ক্যাচ ছেড়েছিলেন কাইল ভ্যারানে। এরপর শেষ বিকেলে আর কোন উইকেট না পড়লে হোপ ২১ আর ব্ল্যাকউড অপরাজিত থাকেন ১০ রান করে।

এর আগে দক্ষিণ আফ্রিকাকে একাই টেনেছেন কুইন্টক ডি কক। লোয়ার অর্ডার ব্যাটসম্যানদের নিয়ে প্রোটিয়াদের তিনশো পেরোনো সংগ্রহ এনে দেন এই উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান। ১৭০ বলে ক্যারিয়ার সেরা ১৪১ রানের দারুণ এক ইনিংস খেলেছেন তিনি। যা তাঁর ক্যারিয়ারের ষষ্ঠ সেঞ্চুরি।

২০১৯ সালের অক্টোবরের পর প্রথমবারের মতো সেঞ্চুরির দেখা পেলেন ডি কক। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে এদিন ৭ ছক্কা মেরে এবি ভিলিয়ার্সকে স্পর্শ করেছেন তিনি। ২০০৯ সালে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ৭ ছক্কা মেরে দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে এক ইনিংসে সবচেয়ে বেশি ছক্কা মারার রেকর্ড গড়েছিলেন ডি ভিলিয়ার্স। ৪ উইকেটে ১২৮ রান নিয়ে দ্বিতীয় দিন শুরু করা দক্ষিণ আফ্রিকা শেষ পর্যন্ত থামে ৩২২ রানে। ডি ককের ১৪১ রানের ইনিংস ছাড়াও মার্করাম ৬০, রাসি ভ্যান ডার ডুসেন ৪৬ ও উইয়ান মুল্ডার খেলেছেন ২৫ রানের ইনিংস। ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে চারটি উইকেট নিয়েছেন জেসন হোল্ডার।

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Check Also
Close
Back to top button