আন্তর্জাতিক

হোটেলে তরুণীর লাশ, চিরকুটে লেখা ‘মারতে চাইনি বাধ্য হলাম’

২৩ ডিসেম্বর ২০২০, বিন্দুবাংলা টিভি. কম, ডেস্ক রিপোর্টঃ

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের কলকাতার নিউটাউনের হোটেলে চাদর মোড়া তরুণীর রক্তাক্ত দেহ উদ্ধার ঘিরে চাঞ্চল্য। মদের বোতল ভেঙে সেই ভাঙা কাচ দিয়ে তরুণীকে কুপিয়ে খুন করা হয়েছে অনুমান পুলিশের।

প্রাথমিক তদন্তে পুলিশ জানতে পেরেছে, ওই তরুণীর বাড়ি পশ্চিম মেদিনীপুরে। নাম চুমকি ঘোষ। ঘটনাস্থলে উদ্ধার হয়েছে একটি চিরকুট। তাতে লেখা হয়েছে, ‘মারতে চাইনি, বাধ্য হলাম’।

এই লেখাটি খুনির কি না, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। যদিও পুলিশের তরফে এখনো এ বিষয়ে সরকারি ভাবে কিছু জানানো হয়নি।

নিউটাউনের ওই হোটেলে এক যুবকের সঙ্গে উঠেছিলেন ওই তরুণী। মঙ্গলবার রাতে তাদের ডাকাডাকি করেও সাড়া না পাওয়ায় সন্দেহ হয় হোটেলের কর্মীদের। খবর দেওয়া হয় থানায়। ঘরে ঢুকে পুলিশ বিছানার উপর থেকে ক্ষতবিক্ষত অবস্থায় ওই মহিলাকে উদ্ধার করে হাসপাতাল নিয়ে যায়।

পুলিশ হোটেলের সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখতে শুরু করে। তাতে দেখা যায়, তরুণীর সঙ্গী যুবক রাতে হোটেল ছেড়ে বেরিয়ে যাচ্ছেন। ওই যুবক পশ্চিম মেদিনীপুরের একটি ঠিকানা লিখেছিলেন। সেই ঠিকানা সঠিক কি না, তা যাচাই করে দেখছেন তদন্তকারীরা।

টেকনো থানার পুলিশ তদন্তে নেমেছে। ওই তরুণী বিবাহিত বলে জানা যাচ্ছে। খুনের উদ্দেশ্যেই হোটেলে ঘর ভাড়া করা হয়েছিলো বলে প্রাথমিক তদন্তে মনে করছে পুলেশ। মঙ্গলবার দুপুর ১টায় হোটেল আসেন তারা। দুপরে হোটেলেই খাবার খেয়েছেন। তারপর বিকেলে খাবারও অর্ডার করা হয়। গতকাল সন্ধ্যা ৭টার দিকে হোটেল ছেড়ে দেওয়ার কথা থাকলেও ঘর বন্ধ ছিলো।

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Back to top button