আইন-আদালত

নির্দোষ আরমানকে মুক্তিসহ ২০ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দেওয়ার নির্দেশ

৩১ ডিসেম্বর ২০২০, বিন্দুবাংলা টিভি. কম, ডেস্ক রিপোর্টঃ

অপরাধ না করেও ভুল আসামি হয়ে প্রায় চার বছর ধরে কারাগারে থাকা রাজধানী পল্লবীর বেনারসি কারিগর মো. আরমানকে মুক্তির নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। একইসঙ্গে তাকে ২০ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দিতে পুলিশ মহাপরিদর্শকের (আইজিপি) প্রতি নির্দেশ দিয়েছেন উচ্চ আদালত। বৃহস্পতিবার (৩১ ডিসেম্বর) দুপুরে হাইকোর্ট বিভাগের বেঞ্চটি এ রায় দেন।

হাইকোর্ট বিভাগের বিচারপতি মুজিবর রহমান মিঞা ও বিচারপতি মহিউদ্দিন শামীমের সমন্বয়ে গঠিত দ্বৈত বেঞ্চ এক রিটের চূড়ান্ত নিষ্পত্তি করে এ রায় দেন। রায়ে আরমান বিহারীকে মুক্তির পাশাপাশি ক্ষতিপূরণ বাবদ ২০ লাখ টাকা আগামী ৩০ দিনের মধ্যে দিতে পুলিশের আইজি ও ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া অভিযুক্ত ৫ পুলিশ সদস্যেকে দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দিয়ে পুলিশ লাইনে পাঠানোর নির্দেশ দেন হাইকোর্টের এই বেঞ্চ।

মামলার বর্ণনায় জানা যায়, মিরপুরের বিহারী ক্যাম্পে মা ও স্ত্রী-সন্তানকে নিয়ে বাস করতেন আরমান বিহারী। মাদক মামলায় প্রকৃত আসামির বাবার নামের সঙ্গে আরমানের বাবার নাম মিলে যাওয়ায় ২০১৬ সালে ২৭ জানুয়ারি পল্লবী থানা পুলিশ তাকে ধরে নিয়ে যায়। এরপর থেকেই মাদক মামলায় কারাভোগ করছেন তিনি।

নথি ঘেঁটে দেখা যায় ২০০৫ সালের এক মাদক মামলায় ২০১২ সালে ১০ বছরের সাজা হয় শাহাবুদ্দিন বিহারীর। তবে সে পলাতক থাকায় ২০১৬ সালে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি হলে শাহাবুদ্দিনকে গ্রেপ্তার না করে গ্রেপ্তার করা হয় আরমানকে। বিনা দোষে প্রায় ৫ বছর কারাভোগ করা বেনারসি কারিগরকে মুক্তির নির্দেশ দেন হাইকোর্ট। সে সঙ্গে ২০ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দিতে বলা হয়েছে পুলিশকে। এদিকে এ ঘটনায় দোষীদের শাস্তি দাবি করেন আরমানের পরিবার।

পুলিশকে তদন্ত করার ক্ষেত্রে আরও সতর্ক হওয়ার নির্দেশ দেন হাইকোর্ট। এ ছাড়া অভিযুক্ত ৫ পুলিশ সদস্যকে দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দিয়ে পুলিশ লাইনে পাঠানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এই ঘটনার জন্য পুলিশের ব্যর্থতাকে দায়ী করা হয়েছে।

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Back to top button