বিনোদন

আমাকে মানসিকভাবে ধর্ষণ করা হয়েছে: কঙ্গনা

১২ ডিসেম্বর ২০২০, বিন্দুবাংলা টিভি. কম, ডেস্ক রিপোর্টঃ

ভারতের বিতর্কিত কৃষি বিল নিয়ে আন্দোলন করছেন দেশটির কৃষকরা। কৃষক আন্দোলন নিয়ে দুভাগে বিভক্ত বলিউড। কেউ নিচ্ছেন সরকারের পক্ষ আবার কেউ কৃষকদের পক্ষ নিচ্ছেন। সানি দেওল, কঙ্গনা রানাউতরা যখন কৃষক আন্দোলন নিয়ে সরকারের পাশে দাঁড়াতে শুরু করেছেন, সেই সময় দিলজিৎ দোসাঞ্জ, সোনু সুদ ও প্রিয়াঙ্কা চোপড়ারা উল্টো সুর গান গাইছেন

তবে এ বিষয়ে বর্তমানে সবচেয়ে বেশি আলোচনায় অভিনেত্রী কঙ্গনা রাণৌত ও পাঞ্জাবি গায়ক-অভিনেতা দিলজিৎ দুসাঞ্জ।

টুইটারে এ বিষয়ে একাধিক পোস্ট করেছেন কঙ্গনা। এক টুইটে তিনি লিখেছেন, ‘যারা কৃষকদের আন্দোলন সমর্থন করছেন এবং কৃষক বিল ২০২০-এর বিরোধীতা করছেন তাদের প্রত্যেকরই সমস্যা আছে। তারা জানেন না এই বিল কৃষকদের জন্য কতটা ফলপ্রসূ। তবুও সহানুভূতি নেওয়ার জন্য তারা সহজ সরল কৃষকদের সংঘাত, ঘৃণা, ভারত বন্ধ করতে প্ররোচিত করছে।’

দিলজিৎ ও অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার কৃষকদের পাশে দাঁড়ানো প্রসঙ্গে অপর এক টুইটে তিনি লিখেছেন, ‘দিলজিৎ দুসাঞ্জ ও প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার মতো মানুষরা কৃষকদের আন্দোলনে উৎসাহ দেওয়া ও বিপথগামী করার জন্য বামপন্থী মিডিয়ার বাহবা পাবেন। ইসলামপন্থী, ভারতবিরোধীরা তাদের নানা প্রস্তাব এবং বিদেশি মিডিয়া তাদের অ্যাওয়ার্ড দেবেন। দুর্নীতি বিরুদ্ধে আমরা খুব অল্প সংখ্যক মানুষ। কিন্তু আমি বিশ্বাস করি, ভালো ও মন্দের এই লড়াইয়ে ম্যাজিক ঘটবে। মন্দ যতই শক্তিশালী হোক।’

অন্য এক টুইটে তিনি লিখেছেন, ‘আমি যা বলছি তা গোয়েন্দা সংস্থা জানিয়েছে। কিন্তু কিছু মানুষ ট্রেন্ড করছে যে, দিলজিৎ কঙ্গনাকে পরাজিত করেছে, তার মানে দিলজিৎ কঙ্গনা ধর্ষণ করেছে। উদারপন্থী এই মানুষরা যা ট্রেন্ড করছেন তা হলো একজন নিঃসঙ্গ নারীকে মানসিকভাবে ধর্ষণ করা হয়েছে এবং চিয়ারলিডাররা হাত তালি দিচ্ছেন। আমি আপনাদের সবাইকে দেখছি।’

এর আগে কৃষক বিক্ষোভ নিয়ে দিলজিৎ ও কঙ্গনার মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। দিলজিৎকে ‘করণ জোহরের পোষ্য’ বলে কটাক্ষ করেন কঙ্গনা। অন্যদিকে, দিলজিৎ পাল্টা প্রশ্ন করেন, কঙ্গনা যাদের সঙ্গে কাজ করেন তিনিও তাদের সকলের পোষ্য কিনা।

অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা চোপড়া টুইটে লিখেছিলেন, ‘আমাদের কৃষকরাই অন্নদাতা। তাই গণতান্ত্রিক দেশে তাদের দাবি যাতে মানা হয়, সে ব্যাপারটা নিশ্চিত করা উচিত। আশা করি, দ্রুত এই সমস্যা মিটে যাবে।’

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Back to top button