সারাদেশ

মেঘনায় ছাত্রলীগ নেতা সালাম সহ ৫ জনের বিরুদ্ধে পল্লিবিদ্যুতের মিটার বানিজ্যের অভিযোগ তদন্ত চলছে

১১ আগষ্ট ২০২০, বিন্দুবাংলা টিভি. কম, স্টাফ রিপোর্টার : কুমিল্লার মেঘনা উপজেলায় বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাবেক সহ সভাপতি কামরুজ্জামান সালাম সহ ৫ জনের বিরুদ্ধে ৫৮ লক্ষ টাকার মিটার বানিজ্যের অভিযোগ তদন্ত চলছে জানালেন তদন্তকারী কর্মকর্তা বাঞ্চারামপুর পল্লিবিদ্যুত এর ডিজিএম জহিরুল করিম। তিনি আজ বিন্দুবাংলা টিভি কে মুঠোফোনে জানতে চাইলে এ কথা বলেন। তিনি বলেন অভিযোগের তদন্ত করতে সরেজমিনে গিয়েছি আরও অধিকতর তদন্ত করতে হবে এর আগে কিছুই বলা যাবেনা। উল্লেখ্য গত ২৭ জুলাই সিস্টেম ইঞ্জিনিয়ারিং এন্ড ডিজাইন পরিদপ্তর, পল্লি বিদ্যুতায়ন বোর্ড এর পরিচালক বরাবর উপজেলার রামপ্রসাদের চর গ্রামের জাহির আলী, মোঃ সিকান্দার, এইচ এম মহসিন, এড কামরুজ্জামান গংরা ২০১৪, ২০১৫, ২০১৬ সালে রামপ্রসাদের চর গ্রামের গ্রাহকদের ৫৮ লাখ টাকা বিদ্যুতের মিটার বানিজ্যের অভিযোগ এনে মোঃ ইব্রাহিম, মোঃ মাঈনুদ্দিন মোঃ আউয়াল, মোঃ জয়নাল ভান্ডারী, কামরুজ্জামান সালাম লিখিত আবেদন করেন এর প্রেক্ষিতে ঘটনার তদন্ত চলছে। এ দিকে অভিযুক্তদের মধ্যে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাবেক সহ সভাপতি কামরুজ্জামান সালাম এর সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন আমি ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় রাজনীতি করি উল্লেখিত সময়ে আমি বাড়িতে বিশেষ কাজ ছাড়া যাওয়া আশা হয়নি, আমাকে হেয় প্রতিপন্ন করা ও রাজনৈতিক প্রতিহিংসায় লিপ্ত হয়ে একটি মহল আমাকে নিয়ে স্বরযন্ত্র করছে ঐ সময় বিদ্যুৎ এর কাজ করার জন্য গ্রামবাসী ৩৩ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি করে সেই কমিটিতেও আমার নাম নেই যা আমি ইতিমধ্যে তদন্তকারীর কাছে জমা দিয়েছি আসলে এ বিষয়ে আমি কিছুই জানিনা, দুই এক জন ছাড়া গ্রামের অধিকাংশ মানুষের দস্তখত বালু কাটা বন্ধের কথা বলে নিয়েছে তারা সাধারণ মানুষের সাথেও আমাকে ফাসাতে ধোকাবাজী করেছে। এ দিকে এ ঘটনা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হলে স্থানীয় ছাত্রলীগের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতা কর্মীদের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাতে দেখা গেছে।

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Back to top button