সারাদেশ

নবীনগরে আলোচিত পা কেটে উল্লাসের ঘটনার মুলহোতা চেয়ারম্যান জিল্লুর রহমান এবং কাউসার মোল্লা গ্রেপ্তার

১৩ এপ্রিল ২০২০, বিন্দুবাংলা টিভি. কম, ডেস্ক রিপোর্ট : ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগরের কৃষ্ণনগর ইউনিয়নের থানাকান্দি গ্রামে আধিপত্য বিস্তারের ঘটনাকে কেন্দ্র করে দু’পক্ষের সংঘর্ষে দুই দলের নেতৃত্ব প্রদানকারী নেতা কৃষ্ণনগর ইউপি চেয়ারম্যান জিল্লুর রহমান এবং কাউসার মোল্লাকে পুলিশ আজ সোমবার সকালে গ্রেপ্তার করেছে। এছাড়া এই পর্যন্ত পুলিশ এই দুই নেতাসহ ৪৩ জনকে গ্রেফতার করেছে।
পুলিশের একটি সূত্র জানায়, সংঘর্ষের ঘটনার মূলহোতা কৃষ্ণনগর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান জিল্লুর রহমানকে সোমবার ভোরে ঢাকার কলাবাগান থেকে ও থানাকান্দি গ্রামের কাউছার মোল্লাকে রবিবার গভীর রাতে আশুগঞ্জের বায়েক গ্রাম থেকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। সংঘর্ষের ঘটনায় ওই দুজনকে আসামি করে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

স্থানীয়রা জানান, দীর্ঘদিন ধরে কৃষ্ণনগর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জিল্লুর রহমানের সঙ্গে থানাকান্দি গ্রামের সর্দার আবু কাউসার মোল্লার আধিপত্য বিস্তার নিয়ে বিরোধ চলে আসছে। এই বিরোধে একাধিক সংঘর্ষে কয়েকজনের প্রাণহানি’র ঘটনাও ঘটেছে।

রবিবার উভয় পরে লোকজন দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। সংঘর্ষ চলাকালে ধারালো অস্ত্র দিয়ে জিল্লুর রহমানের সমর্থক মোবারক মিয়ার (৪৫) এক পা কেটে নিয়ে শ্লোগান দিয়ে গ্রামে আনন্দ মিছিল করে আবু কাউসার মোল্লার সমর্থকরা।

নবীনগর থানার অফিসার ইনচার্জ রনোজিত রায় জানান, এ পর্যন্ত মোট ৪৩ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। গ্রেফতার অভিযান অব্যাহত রয়েছে। পুলিশ বাদী হয়ে মামলা হয়েছে।

এ ঘটনায় এলাকায় শান্তিশৃংখলা বজায় রাখতে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Back to top button