সারাদেশ

আরও ৫ গণমাধ্যমকর্মী করোনায় আক্রান্ত, মোট ১৫

১৬ এপ্রিল ২০২০, বিন্দুবাংলা টিভি. কম, ডেস্ক রিপোর্ট :
দীপ্ত টিভির আরও চার সাংবাদিক করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। বুধবার সেখানে কর্মরত একজন রিপোর্টার, একজন নিউজ এডিটর, দুজন প্রডিউসারের শরীরে করোনা সংক্রমণ ধরা পড়ে। এ নিয়ে একই টিভি স্টেশনের ৫ জন আক্রান্ত হলেন। এর আগে এই টেলিভিশনের একজন সাংবাদিকের শরীরে কোভিড-১৯ পজেটিভ পাওয়া গিয়েছিল। এতে ওই টেলিভিশনের সংবাদ বিভাগ লকডাউন করে দেওয়া হয়েছে। সংবাদ প্রচার বন্ধ রয়েছে।

এর আগে বুধবার বিকেলে দেশের আরেকটি বেসরকারি টেলিভিশনের জেনারেল সেকশনের এক কর্মকর্তা করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এ জন্য সংশ্লিষ্ট চ্যানেলের কয়েকজন শীর্ষ কর্মকর্তাসহ ১৫ জনের বেশি কর্মীকে কোয়ারেইন্টাইনে পাঠানা হয়েছে। এ নিয়ে বুধবার পর্যন্ত গণমাধ্যমে কর্মরত আক্রান্ত ব্যক্তির সংখ্যা ১৫।

মঙ্গলবার (১৪ এপ্রিল) ৭১ টেলিভিশন ও মানবজমিনের গাজীপুর প্রতিনিধি ইকবাল আহমদ সরকার করোনা আক্রান্ত খবর পাওয়া যায়। একই দিন নারায়ণগঞ্জে পত্রিকার ২ সাংবাদিক আক্রান্ত হয়েছেন। এর আগের দিন সোমবার এটিএন নিউজের একজন সাংবাদিক করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন বলে স্টেশনটির এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয় । তার আগে যমুনা টিভির সাংবাদিক আক্রান্ত হয়ে কুর্মিটোলা হাসপাতালে ভর্তি হন। সর্বপ্রথম আক্রান্ত গণমাধ্যম কর্মী ইন্ডিপেন্ডেন্ট টিভির। তার পর দৈনিক বাংলাদেশের খবর পত্রিকা ও সাপ্তাহিক সোনার বাংলার দুই সাংবাদিক করোনা আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন। এ ছাড়া বেসরকারি একটি টেলিভিশন চ্যানেলের নরসিংদী জেলা প্রতিনিধির করোনাভাইরাস ধরা পড়ে।

আক্রান্ত সংবাদকর্মীরা কেউ বাড়িতে এবং কেউ হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন। এরা সংক্রমিত হওয়ায় আইইডিসিআরের পরামর্শে শতাধিক সাংবাদিক-কর্মচারীকে হোম কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়। এদের মধ্যে ইন্ডিপেন্ডেন্ট টেলিভিশনের ৪৭ সংবাদকর্মীর কোয়ারেন্টাইন শেষ হয়েছে। এ সময়ে তাদের কারও মধ্যে কোনো উপসর্গ মেলেনি।

করোনা আক্রান্তের এ সংখ্যা বাংলাদেশের গণমাধ্যমের জন্য অশনিসংকেত বলছেন সংশ্লিষ্টরা। গণমাধ্যমকর্মীদের অভিযোগ, সাংবাদিকদের স্ব স্ব মিডিয়া হাউজ থেকে স্বাস্থ্যসুরক্ষা সামগ্রী না দিয়েই অ্যাসাইনমেন্টে পাঠানো হচ্ছে। সাংবাদিকদের এমন চলাফেরা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন সাংবাদিক নেতারা।

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Back to top button