সাক্ষাতকার

পরিবারের ভিতর সামাজিক দূরত্ব, সচেতন ও সতর্ক থাকতে হবে : রতন শিকদার

২৬ মার্চ ২০২০, বিন্দুবাংলা টিভি. কম, এম এইচ বিপ্লব সিকদার : প্রতিটি পরিবারের ভিতরে সামাজিক দূরত্ব, সচেতন ও সব বিষয়ে সব সময় সতর্ক থাকতে হবে বললেন মেঘনা উপজেলা চেয়ারম্যান সাইফুল্লাহ মিয়া রতন শিকদার। আজ এই প্রতিবেদককে মুঠোফোনে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে উপজেলার জনসাধারণের করনীয় সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি এ কথা বলেন। তিনি বলেন এই মুহূর্তে সকলে সরকারি নিয়মনীতি অনুসরণ করে চলতে হবে। মাঠে সশস্ত্র বাহিনী সহ আমাদের উপজেলা ও পুলিশ প্রশাসন সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা বাজার মনিটরিং ব্যবস্থা, গণ জমায়েত না করা, সচেতনতা মুলক লিফলেটে বিতরণ সহ সকলকে ঘরে থাকার জন্য জোর দিয়ে কাজ করছেন। তিনি আরও বলেন এই মুহূর্তে আমি মেঘনা উপজেলায় যারা ইতিমধ্যে ঢাকা থেকে এলাকায় এসেছেন তাদের প্রতি জোর অনুরোধ করছি আপনারা হোম কোয়ারেন্টাইন মেনে চলুন। এই ক্ষেত্রে সচেতনতার কোন বিকল্প নেই আমাদের সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় এই দূর্যোগ মোকাবিলা করতে হবে। রতন শিকদার বলেন উপজেলার বিভিন্ন জায়গায় দেখা যাচ্ছে অনেকে অতি উৎসাহী হয়ে স্প্রে করছেন বিভিন্ন জায়গায় এই ক্ষেত্রে আমি বলবো কি দিয়ে স্প্রে করছেন তা দিয়ে জীবাণু রোধ হচ্ছে কিনা বা কীটনাশক স্প্রে করছেন কিনা তা দায়িত্বশীল কর্মকর্তার পরিক্ষা নিরিক্ষা করে করতে হবে অন্যথায় হীতে বিপরিত হবে, শুধু ফটোসেশান করার জন্য নিজেকে ঝুঁকিতে নিবেননা, প্রচারণা বা স্বেচ্ছাসেবকদের ও সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে কাজ করতে হবে। আমাদের হাসপাতালে ১৫ জন চিকিৎসক সহ যারা মাঠে দায়িত্ব পালন করবেন প্রত্যেকের ppe প্রয়োজন এই মুহূর্তে আমাদের হাতে আছে মাত্র ১০ টা ppe, আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি যদি সরকারি ভাবে জোগান দেওয়ার পরেও যদি লাগে আমরা নিজেদের অর্থায়নে হলেও পর্যাপ্ত ppe রাখবো। মাঠ ঘাট সব ফাঁকা আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি যেন না হয় সে বিষয়ে আপনার পদক্ষেপ কি জানতে চাইলে তিনি বলেন আমাদের উপজেলার চতুর্দিকে নদী আর নদী তীর গ্রাম গুলোতেই চুরি ডাকাতি বেশি হয় তাই আমরা নৌ পুলিশ কে সব সময় টহল দেওয়ার ব্যবস্থা করেছি তা ছাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মেম্বার সহ স্থানীয় ব্যক্তি বর্গ কে নিয়ম মেনে সজাগ থাকার কথা বলা হয়েছে, আমাদের পুলিশ প্রশাসন এ ব্যাপারে শক্ত অবস্থানে রয়েছেন। আমি বিন্দুবাংলা টিভি’র মাধ্যমে আমার উপজেলা বাসীর নিকট বলতে চাই অপ্রয়োজনে বাড়ির বাহির হবেননা অতি প্রয়োজন হলে সামাজিক দূরত্ব ও মাস্ক পরে প্রয়োজনীয় কাজ দ্রুত করে ঘরে চলে যাবেন।

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Back to top button