সারাদেশ

দোয়ারাবাজারে অস্ত্রের মুখে চেকবইয়ে স্বাক্ষর ও প্রাণনাশের হুমকির প্রতিবাদে মানববন্ধন

৪ জুলাই ২০১৯, বিন্দুবাংলা টি.. কম,
এনামুল কবির(মুন্না)দোয়ারাবাজার প্রতিনিধিঃসুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজার উপজেলার মান্নারগাঁও ইউনিয়নে নিঃসন্তান এক বৃদ্ধাকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে বাড়িতে নিয়ে অস্ত্রের মুখে আটকে রেখে তার সাতটি ব্ল্যাংক চেক বই ও ষ্টাম্পে স্বাক্ষর নেয়াসহ প্রাণনাশের হুমকির প্রতিবাদে এবং দোষীদের গ্রেফতারের দাবিতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।
বুধবার দুপুর ১২টায় মান্নারগাঁও ইউনিয়নবাসীর আয়োজনে স্থানীয় আমবাড়ি বাজারে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। মানববন্ধনে বিভিন্ন শ্রেণি পেশার লোকজন অংশ নেন। ডাঃ মোঃ ফজলুল ইসলামের সভাপতিত্বে এ সময় বক্তব্য রাখেন,মান্নারগাঁও ইউনিয়ন পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান মোঃ ইব্রাহিম আলী,সমাজসেবক মোঃ আজাদ মিয়া,রইছ আলী,আলী হায়দার,নুর আহমদ মাছুম,নির্যাতিত মোঃ নুর উদ্দিন,নুরুজ্জামান মিয়া,আবুল খয়ের ও রুস্তম আলী প্রমুখ।
নেতৃবৃন্দরা বলেন, গত ৭ জুন দোয়ারাবাজার উপজেলার মান্নারগাঁও ইউনিয়নের গোপালপুর গ্রামের মৃত হরমুল আলীর ছেলে নূর উদ্দিন (৭০) এর দাম্পত্য জীবনে কোন পুত্র সন্তান না থাকায় তিনি সন্তান পাওয়ার সুখে কাতর ছিরেণ। সহজ সরল নুর উদ্দিনকে ফুসঁলিয়ে একই উপজেলার লক্ষীপুর ইউনিয়নের জিরাগাঁও গ্রামের মৃত মনফর আলীর ছেলে চিটিংবাজ মোঃ ফজলুল হক,মান্নারগাঁও ইউনিয়নের কামারগাঁও (লামাগাঁও) গ্রামের মৃত আব্দুল মতলিবের ছেলে সালাম উদ্দিন ও ঢোলপশি গ্রামের মৃত কোয়াজ আলীর ছেলে ইমান আলী গংরা লন্ডনী মেয়ে বিয়ে দেয়ার কথা বলে জিরাগাঁও গ্রামে নিয়ে দেশীয় অস্ত্রের মুখে আটকিয়ে রাখে। নুর উদ্দিনের চেক বইয়ের সাতটি ব্ল্যাংক চেকে জোরপূর্বক স্বাক্ষর নেয় এবং কাউকে জানালে প্রাণনাশের হুমকি দেয়া হয়। নেতৃবৃন্দরা অবিলম্বে এই চিটিংবাজদের গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি প্রদানের জন্য সরকার ও প্রশাসনের নিকট দাবি জানান।
উল্লখ্য গত ২৭ জুন নিরীহ নূর উদ্দিন বাদি হয়ে নামাংকিত ব্যাক্তিদের আসামী করে আমলগ্রহনকারী জুডিসিয়াল মেজিষ্ট্র্যট আদালত সুনামগঞ্জে (দোয়ারাবাজার) মামলা দায়ের করেন। মামলার বিষয়টি জনসমকক্ষে প্রকাশ হলে, বিবাদিরা উল্টো বাদীকে তার স্বাক্ষরিত চেকবই দিয়ে মিথ্যা মামলায় ফাঁসানোর হুমকি দিচ্ছে বলে অভিযোগ পত্রে উল্লেখ করেন।

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Check Also
Close
Back to top button