রাজনীতি

মেঘনাউপজেলা মুক্তিযুদ্ধ প্রজন্মদল নিয়ে কুয়েতে প্রতিবাদ।

৬ মে ২০১৯ বিন্দুবাংলা টিভি. কম,মিজানুর রহমান:    মেঘনা উপজেলা  প্রজন্মদল নিয়ে আলোচনা করেন, মেঘনার সন্তান কুয়েত প্রবাসী এবং মেঘনা বিএনপি প্রজন্মদলের সিনিয়র সদস্যরা এবং যুবদলের সদস্যরা সহ আরো অনেকেই।

গত ৩রা মে কুয়েতের সংসদভবনের পাশে সমুদ্র সৈকতের পাড়ে মেঘনার বিএনপি মুক্তিযুদ্ধ প্রজন্মদলের সিনিয়র সদস্যরা এবং যুবদলের সদস্যরা , বিএনপি এবং মুক্তিযুদ্ধ প্রজন্মদল সম্পর্কে গুরুত্বপূর্ণ আলোচনা করেন।
এসময় উপস্থিত ছিলেন মোঃ মিজান ভূঁইয়া সবুজ,,, মোঃ ফারুক সিদ্দিকী এবং মোঃ নবী হোসেন নবী সহ আর অনেকেই,,

আলোচনার মূল বিষয় ছিলো মুক্তিযুদ্ধ প্রজন্মদল কমিটি নিয়ে অনেকেই সন্তুষ্ট নয় মর্মে প্রতিবাদ । মুক্তিযুদ্ধ প্রজন্মদলের কমিটি প্রাপ্ত সভাপতির নামে অনিয়ম এর অভিযোগ, সে পদ পদবী দেওয়ার কথা বলে অনেক কর্মীদের কাছ থেকে টাকাপয়সা হাতিয়ে নিয়েছে বলে অভিযোগ এর সত্যতা পাওয়া গেছে। আলোচনায় মিজান ভূঁইয়া সবুজ বলেন, এই মুক্তিযুদ্ধপ্রজন্ম দল কমিটি নিয়ে আমরা মোটেও সন্তুষ্ট না, কারন এই কমিটিকে অর্থনৈতিক সহযোগিতা সহ অক্লান্ত পরিশ্রম দিয়ে যারা দলীয় ভিবিন্ন প্রোগ্রামে অংশ গ্রহন করে একটি শক্ত ও মজবুত অবস্থানে দাড় করিয়েছেন তাদের কাউকে সঠিকভাবে মুল্যায়ন করা হয়নি, এবং সিনিয়র সদস্য, মোঃ ইকবাল মিয়া, এস আই এম ইব্রাহীম, নাসিরুদ্দিন, মোঃ নাঈম, আকরাম হোসেন, সজিব, লিয়াকত শিকদার, মোকলেছ নীরব, জাহাঙ্গীর আলম বাবু,শামিম,মুক্তার মোল্লা, আল আমিন, রাকিব হোসেন, সালাহউদ্দিন,জাহিদ আলম, বদিউল আলম, আরেফিন রোবেল, শাহপরান সহ আরো অনেক’কেই এই কমিটিতে রাখা হয়নি, সুপার থ্রিতে পদ পাওয়া কয়েকজন আছেন যাদের মেঘনা বিএনপি’র সিনিয়র সদস্য রা কেউ চিনেনা এবং ওই ব্যক্তি কখনো প্রজন্মদল কিংবা বি এন পির পক্ষে অগ্রণী ভুমিকা রাখেনি, তাই কমিটি যোগ্যতা সম্পূর্ণ ব্যক্তিদ্বারা পরিচালনা করার জন্য পুনরায় নতুন ভাবে ঢেলে সাজানোর জোরালো দাবী জানাচ্ছেন। এই কমিটির বিষয় ড.খন্দকার মোশাররফ হোসেন স্যার এবং খন্দকার মারুফ হোসেন ভাই সহ মেঘনার সকল সিনিয়র নেতৃবৃন্দদের সুদৃষ্টি কামনা করছেন সকলেই। তারা বললে, কর্মীরা তাদের কাজের যথাযোগ্য মূল্যায়ন না পেয়ে আজ হতাশ তাই মেঘনা মুক্তিযুদ্ধ প্রজন্মদল কে এগিয়ে নিতে হলে বর্তমান কমিটি প্রত্যাহার করে যোগ্যতা সম্পূর্ণ ব্যক্তি দিয়ে নতুন কমিটি করার উদাত্ত আহ্বান জানান।

 

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Back to top button