সারাদেশ

ছাগলনাইয়া পৌরবাসীর হৃদয় জয় করেছেন মেয়র এম.মোস্তফা।

৫ মে ২০১৯ ,
বিন্দুবাংলা টিভি. কম ,
সৈয়দ কামাল,ফেনী থেকেঃফেনীর ছাগলনাইয়া পৌরসভার ৯ টি ওয়ার্ড ব্যাপি উন্নয়নে ও ছাগলনাইয়া পৌর শহরের সৌন্দয্য বৃদ্ধি এবং শহরটির নানা মূখি সমস্যা সমাধানে,পৌর নাগরীকদের সেবা প্রদানে এবং তাদের সুখে-দুঃখে সার্বক্ষণিক তাদের পাশে থেকে,পৌর মেয়র হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণের পরথেকেই পৌর বাসীর অন্তর জয় করে প্রসংশনীয় ভূমিকা পালন করে যাচ্ছেন,প্রায় সাড়ে ৩ বছর পূর্বে ছাগলনাইয়ার পৌর মেয়র হিসেবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দেওয়া মনোনীত প্রার্থী নির্বাচিত পৌর মেয়র এম.মোস্তফা।
মেয়র হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণের পরথেকে পৌরসভা ব্যাপি সড়ক পাকা করন,পানি নিষ্কাসনে ড্রেন নির্মান,অন্ধকারাচ্ছন্ন পৌর অঞ্চলে বৈদ্যুতিক লাইট স্থাপন,বিভিন্ন সড়কে পুল কালভার্ট নির্মান,পৌরসভা ব্যাপি বিভিন্ন কবরস্থানের পবিত্রতা রক্ষায় পাকা ওয়াল নির্মান করণ,পৌরসভার ৯ টি ওয়ার্ডের বিভিন্ন মসজিদে স্টীলের নির্মিত খাটিয়া প্রদান,যেসব মসজিদে অজুখানা ও বাথরুম নেই সেই সকল মসজিদ গুলিতে এইসব নির্মান করণে আর্থিক অনুদান প্রদান,গরীব দুঃখি পৌর নাগরিকদের বাসস্থান নির্মানে অনুদান প্রদান,ছাগলনাইয়া পৌর শহরকে সার্বক্ষণিক পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখতে পৌর শহর ব্যাপি ডাসবিন নির্মান ও প্রতিদিন রাতে পৌর শহরের ময়লা আবর্জনা অপসারণ করন,পৌর শহর ব্যাপি সবগুলি গলিপথ সিমেন্ট ডালাই দিয়ে উঁচু করণ সহ পৌরসভা ব্যাপি উন্নয়ন কর্মকান্ডে হেনকোন কাজ নেই,যে কাজ গুলি মেয়র এম.মোস্তফার অনুদান ব্যতিত হচ্ছে।
পৌরসভার সার্বিক উন্নয় ক্ষেত্রে ভূমিকা পালনের পাশাপাশি মেয়র এম.মোস্তফা মানবীক সেবা প্রদানে শুধুমাত্র পৌরসভা নয় পুরো উপজেলার মধ্যে আলোকিত একজন ব্যাক্তি হিসেবে পরিচিত।তিনি উপজেলা ব্যাপি নিজ দলীয় ও বিভিন্ন অভাবগ্রস্থ রোগিদের চিকিৎসা সেবায় সহযোগিতা করণে নিজের ব্যাক্তিগত তহবিল থেকে ওই সব অভাবগ্রস্থ রোগিদেরকে নগদে আর্থিক অনুদান প্রদানে ভূমিকা পালন করে যাচ্ছেন।তিনি ছাগলনাইয়া পৌরসভাধীন ৩ নং ওয়ার্ডে অভাবগ্রস্থ দুইজন রোগির চিকিৎসা ক্ষেত্রে ওই দুই রোগির পরিবারকে সহযোগিতা করণে,তার ব্যাক্তিগত তহবিল থেকে নগদে আর্থিক অনুদান প্রদানে মানব সেবায় অবদান রাখার প্রমাণ দিয়েছেন।
যে দুই রোগির চিকিৎসা ক্ষেত্রে মেয়র এম.মোস্তফা আর্থিক সহযোগিতা প্রদান করেছেন,তাদের একজন হলেন ছাগলনাইয়া উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের দুই বারের নির্বাচিত ডেপুটি কমান্ডার,বর্তমানে নিজ বাড়ীতে ২৪ ঘন্টা অক্সিজেনের সাহায্যে বেঁচে থাকা মৃত্যু পথযাত্রী বীর মুক্তিযোদ্ধা সৈয়দ আবদুর রহিম চু্ট্টু মিয়া।এই মুক্তিযোদ্ধার চিকিৎসা ক্ষেত্রে খোঁজ খবর নিতে মেয়র এম.মোস্তফা দুইবার স্বশরীরে তার বাড়ীতে যান এবং দুইবারেই তাকে নগদে আর্থিক সহযোগিতা করেন।০৫ মে তৃতীয়বার মেয়র মোস্তফা মুক্তিযোদ্ধা চুট্টু মিয়াকে দেখতে ও তার শারীরিক অবস্থার খোঁজ খবর নিতে তার বাড়ীতে যান।২৪ ঘন্টা অক্সিজেন গ্রহণে শেষ অবস্থায় থাকা মুক্তিযোদ্ধা চুট্টু মিয়াকে বাঁচিয়ে রাখতে তার নিম্ন মধ্যবিত্ত পরিবারকে প্রতিদিন দেড় হাজার টাকা করে, অক্সিজেনের যোগান দিতে হচ্ছে শুনে,মেয়র মোস্তফা মুক্তিযোদ্ধা চুট্টু মিয়া যেন শেষ অবস্থায় শ্বাস-প্রশ্বাস গ্রহণে কষ্ঠ না করে,সে ব্যাবস্থা গ্রহণ কল্পে তার পরিবারকে বিদ্যুৎতের সাহায্যে চালিল অক্সিজেন উৎপাদন করণ অক্সিমেড নামের একটি মেশিন কিনে দেওয়ার আশ্বাস প্রদান করেছেন।মেয়র মোস্তফা দ্রুত সময়ের মধ্যে এই মেশিনটি ক্রয়ের জন্য তার পরিবারের হাতে নগদে আর্থিক অনুদান প্রদান করবেন বলে ও জানান।চিকিৎসার জন্য মেয়রের অনুদান পাওয়া একই ওয়ার্ডের অপর রোগিটি হলেন, ৩ নং ওয়ার্ড পৌর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃহানিফ মজুমদার।
এই দরণের বিপদগ্রস্থ গরিভ পরিবারের বহু রোগিকে চিকিৎসা ক্ষেত্রে আর্থিক অনুদান প্রদানে অবদান রেখে যাচ্ছেন,ছাগলনাইয়া পৌরসভার উন্নয়ন সহ গরিভ দুঃখি নাগরীকদের সেবা প্রদানে সহযোগিতা প্রদানকারী,ছাগলনাইয়া পৌরসভার জননন্দিত মেয়র এম.মোস্তফা।

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Back to top button