জাতীয়

সিলেটে অনিয়ম-দুর্নীতি বন্ধের ঘোষণা দিল বিমান।

২৭ এপ্রিল ২০১৯,

বিন্দুবাংলা টিভি. কম,

স্টাফ রিপোর্টার :: বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের বিরুদ্ধে সিলেটের যাত্রীদের অভিযোগের শেষ নেই। সিলেট অঞ্চলের প্রবাসী যাত্রীদের সাথে বিমান বিমাতাসুলভ আচরণ করে বলে দীর্ঘদিনের অভিযোগ। সিলেট ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে নামেমাত্র আন্তর্জাতিক ফ্লাইট পরিচালনা করা হয়। অথচ এ বিমানবন্দর থেকে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে সরাসরি ফ্লাইট চালুর দাবি দীর্ঘদিনের।

এসব বিষয় গেল মার্চ মাসে আন্দোলনে নামেন অ্যাসোসিয়েশন অব ট্রাভেল এজেন্টস অব বাংলাদেশ (আটাব) সিলেট জোনের নেতৃবৃন্দ। গেল ৬ মার্চ সংবাদ সম্মেলন করে বিমানের বিরুদ্ধে নানা অনিয়ম, দুর্নীতির অভিযোগ তুলে আটাব, সিলেট জোন। পরে ২৫ মার্চ সিলেটে বিমান অফিসের সামনে অবস্থান কর্মসূচি পালন করা হয়। এছাড়া প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়, পররাষ্ট্রমন্ত্রী, বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রীসহ সরকারের উচ্চপর্যায়ে বিমানের অনিয়মের চিত্র তুলে ধরে স্মারকলিপি দেয় আটাব। নানামুখী চাপে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স কর্তৃপক্ষ সিলেট অঞ্চলের যাত্রীদের বিষয়আশয় নিয়ে আলোচনার আশ্বাস দেয়।

এরই প্রেক্ষিতে কাল শুক্রবার সিলেটে আসেন বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের জি.এম. মো. সালাউদ্দিন ও ডি.এম.এস এয়ার কমোডর মাহবুব জাহান খাঁন। রাত ৮টার দিকে নগরীর একটি হোটেলের সম্মেলন কক্ষে আটাব সিলেট জোনের নেতৃবৃন্দের সাথে বৈঠকে বসেন বিমান কর্মকর্তারা। ওই বৈঠকে বিভিন্ন দাবির পক্ষে যৌক্তিক বক্তব্য উপস্থাপন করেন আটাব সিলেট জোনের সভাপতি আব্দুল জব্বার জলিল।

এ সময় বিমান কর্মকর্তারা সিলেট অঞ্চলের যাত্রীদের দিকে গুরুত্ব সহকারে নজর দেয়ার আশ্বাস দেন। বৈঠকে ঢাকার যাত্রীদের সাথে মিল রেখে দুবাই, লন্ডন, জেদ্দা প্রভৃতি রুটে সিলেট অঞ্চলের যাত্রীদের জন্য বিমান ভাড়া নির্ধারণ করার সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়। আগামী হজ্ব মৌসুমে সিলেট থেকে সরাসরি জেদ্দা ও মদিনায় ৫টি ফ্লাইট চালুরও সিদ্ধান্ত হয়। এছাড়া ওসমানী বিমানবন্দর থেকে আগামী অক্টোবর মাস থেকে মদিনায় ৪টি ফ্লাইটসহ দিল্লি ও চায়নায় ফ্লাইট চালুর আশ্বাস দেন বিমান কর্মকর্তারা। সিলেটের যাত্রীদের জন্য ট্রানজিট হয়রানি বন্ধসহ হোটেল ও খাবার ব্যবস্থা উন্নত করার প্রতিশ্রুতি মিলে বিমান কর্মকর্তাদের কাছ থেকে।

বৈঠকে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স সিলেট অফিসের ব্যবস্থাপক হেলাল উদ্দিন, সহকারী ব্যবস্থাপক মো. শাহনেওয়াজ, আটাব সিলেট অঞ্চলের সাধারণ সম্পাদক জিয়াউর রহমান খাঁন রেজওয়ান, যুগ্ম সম্পাদক মাহমুদ আহমদ চৌধুরী, কার্যকরী সদস্য জুনায়েদ আলী, দেওয়ান রুশ চৌধুরী, গিয়াস উদ্দিন আমজাদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠকে বিমান কর্মকর্তারা জানান, আগামী এক বছরের মধ্যে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের বহরে আরো কয়েকটি উড়োজাহাজ যুক্ত হবে। এর মাধ্যমে আসন সংকটের বিষয়টি সমাধান হবে। এছাড়া ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের রানওয়ের শক্তি বৃদ্ধির কাজ শেষ হলে ২০২০ সালে এখান থেকে বিশ্বের বিভিন্ন গন্তব্যে সরাসরি ফ্লাইট চালুর প্রতিশ্রুতিও দেন বিমান কর্মকর্তারা।

আটাব সিলেট জোনের সাধারণ সম্পাদক জিয়াউর রহমান খাঁন রেজওয়ান এসব তথ্য জানিয়েছেন।

আটাব সিলেট জোনের সভাপতি আব্দুল জব্বার জলিল সিলেটভিউকে বলেন, ‘বিমানের কর্মকর্তারা আমাদের দাবিগুলো শুনেছেন, কিছু দাবি পূরণ হয়েছে। বাকিগুলোও দ্রুত পূরণের আশ্বাস দিয়েছেন তারা।

Related Articles

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Check Also
Close
Back to top button